June 15, 2016 3:57 pm A- A A+

শিক্ষক রিপন চক্রবর্তী শেবাচিমে ভর্তি : চলছে রক্তের সংকট

আব্দুর রহমান অভি

মাদারীপুরে তিনজন হামলাকারীর হাতে আহত শিক্ষক রিপন চক্রবর্তীকে শেবাচিমে ভর্তিকরা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছে তার অবস্থা সংকটাপন্ন। চলছে রক্তের সংকট।

পুলিশ বলেছে মাদারীপুর নাজিমুদ্দীন কলেজের গণিতের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর ওপর এই হামলা চালানো হয় কলেজের পাশে তার ভাড়া বাসায়।

পুলিশ আরও জানিয়েছেন, হামলাকারী তিনজনের একজনকে জনতা ধাওয়া করে ধরে ফেলে। তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

মাদারীপুর থানার ওসি জিয়াউল মোরশেদ জানান, শিক্ষক রিপন চক্রবর্তীর বাসায় তিনজন অজ্ঞাতনামা লোক এসে দরোজায় নক করে। দরোজা খোলার পরই তার ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে তারা। কুপিয়ে তাকে গুরুতর আহত করে।

চিৎকার শুনে লোকজন জড়ো হলে হামলাকারীরা পালাতে শুরু করে। দুজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। ফাইজুল্লাহ ফাহিম নামে একজনকে জনতা ধরে ফেলে।

আটক এই ব্যক্তিকে পুলিশ এখন জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

ওসি জিয়াউল মোরশেদ জানান, আহত শিক্ষক রিপন চক্রবর্তীকে বরিশাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কেন তার ওপর এই হামলা চালানো হলো, সে সম্পর্কে পুলিশ কিছু বলতে পারছে না। তবে বাংলাদেশে একের পর এক যেসব সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটছে, তার সঙ্গে সর্বশেষ এই হামলার ঘটনার মিল আছে বলে মনে করা হচ্ছে।

পুলিশ বলছে, হামলাকারীদের একজনকে যেহেতু হাতে-নাতে ধরা গেছে, তাই জিজ্ঞাসাবাদে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে তারা আশা করছে।

উল্লেখ্য বাংলাদেশে জঙ্গী হামলা বন্ধের লক্ষ্যে এখন দেশজুড়ে যে অভিযান চলছে, তার মধ্যে এটি এ ধরণের দ্বিতীয় হামলার ঘটনা। এই অভিযানের প্রথম দিনেই পাবনায় একটি হিন্দু সেবাশ্রমের এক সেবককে হত্যা করা হয়।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 1658 বার