April 9, 2017 4:39 pm A- A A+

হাজার বছর ধরে…

মোঃ মঈন তুষার ।। কোন একদিন একজন বলেছিলেন , এক একটা মানুষ স্রষ্টার এক একটি চিন্তা। তিনি সত্যই বলেছেন.. তবু আমি তোমার মত হতে চাই ঠিকই/ তোমার মত দেখতে চাই/ ভুল ভালোবাসার ফাঁদে পড়ে প্রতিদিন হয় কি তোমার আত্মার ক্ষরন। যে ক্ষরন’এ একটু একটু করে তলিয়ে যাচ্ছি আমি একটা দিনের জন, একটা ঘন্টার জন্য, একটা মিনিট, একটা সেকেন্ড তারও ট্রিলিয়ন ভাগে ছিলাম আছি এবং থাকবো আপনার মায়ায় জড়িয়ে..
আমার সবচেয়ে বড় অর্জন হলো আপনাদের মত মানুষগুলো । ছাত্রলীগ করতে গিয়ে আমার অসাধারন কিছু মানুষের সাথে পরিচয় হয়েছে। রাজনীতিতে না আসলে আমি এদেরকে পেতামনা। কিছু কিছু ্ঋন আজীবন রেখে দিতে হয়। শোধ করতে হয়না।
হিরন ভাইয়ের সাথে আমার কবে , কখন , কোথায় পরিচয় হয়েছে তা কি বলবো না মনে করতে পারছিনা
না কি পারবোনা Ñ মসৃন অমসৃন এ পথটি আমি এড়িয়ে চলছি। শহীদ জহির রায়হান লিখেছেন হাজার বছর ধরে.. সম্পর্ক তার সাথে হাজার বছর ধরেই। আমি কবি হুমায়ূন কবির হলে লিখতামÑ সেই কাল সেই সময় প্রত্যহ এসে হাত পা নাচায় আমার সম্মুখে তাতো আর নই। আমি সামান্য ব্যক্তি , তবে এক আদর্শিক মানুষের অনুসারী। আবেগ অনুভূতির জায়গায় হিরন ভাই, ভালোবাসার জায়গায় হিরন ভাই, শাসনের জায়গায়ও । ধূসর দিগন্তে অস্পষ্ট রেখার মত হলেও মনে আছে , একবার আমার মাথায় রক্তক্ষন হলো। তিনদিন ছিলাম অচেতন! সেই সময় কেবল পাগল হতে বাকী ছিলো হিরনভাইয়ের। অস্থির পায়চারী তার করিডোর বেলকনি মেডিকেল চত্ত্বর। চোখ ছলছল তার আমি বাচঁবো কিনা। র্ধৃষ্টতা হলেও বলবোই সম্রাট বাবর আর হুমায়ূনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি কিনা..
অন্যায় অপরাধ না করার যথাসাধ্য চেষ্টা করতাম। তবে ভুল করতাম বড় ছোট মাঝারি । রাগ করতেন হিরন ভাই। মাঝে মধ্যে তিন চারদিন কথা বলতেননা। আবার রাগ ভা্গংতো । ফের প্রানের উচ্ছাস, আদর্শের পথ চলা। মাঝে মধ্যে টাকার কথা বলতাম। টাকা লাগেনা? কত কিছুর জন্যই তো টাকার দরকার ডলার পাউন্ডতো চাইনা। শুনে জন ওয়েনের মত একটা হাসি দিতেন। বলতেন, কিসের জন্য ? আমি আছি যত টাকা লাগুক , যত কোটি টাকা এছাড়া টাকার দরকার নেই কি করবে টাকা দিয়ে ..
স্মৃতি বরাবর দুই ঘোড়ায় টানা একটা গাড়ি, গাড়িটার সামনে থাকে শেষ বিকাল, পিছনে আলো ধলপহরের। মস্তিষ্কও স্মৃতি হাতড়ায়, অন্তরও স্মৃতি হাতড়ায়। কিছু বলবোনা তাই , শুধু একজন কবির একটা কবিতা বলবো,, আমরা হেরে যাবোনা মরে যাবোনা ভেসে যাবোনা, নিঃস্বতার সমূদ্রে একটা দ্বীপের মতই আমাদের বিদ্রোহ আমাদের বিদ্রোহ যাবতীয় বিভীষিকার বিরুদ্ধে!
হিরন ভাই, অনন্ত নক্ষত্রপুঞ্জের যেখানেই থাকেন ভালো থাকেন আমাদের পূর্বপুরুষদের সাথেই থাকেন অন্যথায় নিঃসঙ্গ একটা দ্বীপের মতই থাকেন..

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 1024 বার