April 18, 2017 5:27 pm A- A A+

মেয়াদ উত্তীর্ণের আগেই ওরিয়ন ফার্মার বোতলজাত ঔষধে কালো ফাঙ্গাস ।। মানহীন ঔষধে বাজার সয়লাব

আনোয়ার হোসেন

বর্তমান বাংলাদেশ সরকার ঔষধ তৈরীর উপরে কঠোর আইন থাকা সত্বেও বর্তমানে দেশে বিভিন্ন ঔষধ তৈরী প্রতিষ্ঠানগুলো ধরাকে সরা জ্ঞান করে। জীবন রক্ষাকারী ঔষধের নামে বিষ বিক্রয় করছে। বর্তমান সরকারের কঠোর ঔষধ নিয়ন্ত্রন আইন থাকা সত্বেও বাস্তব প্রয়োগ, দক্ষ জনবলের অভাব, সুষ্ঠু মনিটরিং’এর ব্যবস্থা না থাকার দরুন তারা নিজেরা খেয়াল খুশি মতন ঔষধ উৎপাদন ও বাজারজাত করছে।
গত ১৮ই এপ্রিল কাউনিয়া নিবাসী জনৈক শফিকুল ইসলাম নামের জনৈক ব্যক্তি সদর রোডস্থ জাকির মেডিকেল হল নামের একটি ফার্মেসী থেকে এক ফাইল নোভেলটা সুগার ফ্রি সাসপেনশন কেনে। গ্যাস্ট্রিকের জন্য ব্যবহৃত এই সিরাপ অরিয়ন ফার্মাসিটিউক্যালসের নোভেল্টা ২০০ এমএল, ব্যাচ নং- ৭৮০৬১৬, উৎপাদন- ১২ জুন ২০১৬, মেয়াদ- ১২ জুন ১৮, মূল্য- ১১০টাকা। বোতলটি কেনার পর বাসায় এসে পরীক্ষা করে সাদা চোখে দেখা যায় বোতলের ভিতরে তরল ঔষধে কালো রংয়ের ফাঙ্গাস বা শ্যাওলা জাতীয় দ্রব্য। দৈনিক বাংলাদেশ বাণী পত্রিকায় উক্ত শফিকুল ইসলাম বোতল এর ম্যামোসহ পত্রিকার পক্ষ থেকে যোগাযোগ করলে জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ এসএসএম মো. শফিউদ্দিন জানান, বিষয়টি কোন দুঃখ জনক ব্যাপার নয়, রীতিমত অপরাধ। তবে বিষয়টি সিভিল সার্জনের আওতায় নয়। ড্রাগ অধিদপ্তরের এখতিয়ারে। কার্যকরী পদক্ষেপ তারাই নেবে। তবে আমার দপ্তরে নির্দিষ্ট তথ্য প্রমানাদী সহ সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আসলে আমি আইন ও বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন কর্মকর্তা মো. মাজেদ বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, স্যাম্পল নিয়ে আসেন তারপর দেখি কি করা যায়। দ্রুত কার্যকারী বিষয়টি জানতে চাইলে সে বলে যা পারেন করেন। ভোক্ত অধিকারের মধ্যে জীবন রক্ষাকারী ঔষধ অগ্রগন্য। বিষয়টি তাকে স্মরণ করিয়ে দিলে সে নিরুত্তর থেকে সংযোগ কেটে দেয়। ড্রাগ সুপার তানভীর আহম্মেদ বলেন, লিখিত অভিযোগ পূর্বক আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।
এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান বলেন, জীবন রক্ষাকারী ঔষধ নিয়ে নূন্যতম অসততার ক্ষেত্রে সরকার জিরো টলারেন্স। এক্ষেত্রে ভোক্তা উপযুক্ত তথ্য প্রমানসহ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষরণের আওতায় মামলা দায়ের করলে কার্যকরী ব্যবস্থা হিসেবে ভোক্তা ক্ষতিপূরণ পাবে এবং সংশ্লিষ্ট উৎপাদন ও বাজারজাত করণের বিষয়টাও প্রশাসনিক কৈফিয়তের আওতায় চলে আসবে।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 1786 বার