May 4, 2018 10:05 pm A- A A+

বরিশালে কালবৈশাখীর আশঙ্কা,নদীবন্দরে ২ নম্বর হুঁশিয়ারি

বাণী ডেস্কঃ

মাঝে একদিন বিরতি দিয়ে আবারও বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠছে প্রকৃতি।শুক্রবার (০৪ মে) সকালে তেজদীপ্ত সে রোদের দেখা মিললেও দুপুরেই তার উল্টো চিত্র।কালবৈশাখী পূর্ণরূপেই প্রকাশ করে নিজেকে।আবহাওয়া অধিদফতর বলছে-দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে তীব্র ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাবে।সঙ্গে থাকবে ভারী বর্ষণ আর শিলাবৃষ্টি।কোথাও কোথাও বাতাসের গতিবেগ উঠতে পারে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে।বর্তমান পরিস্থিতিতে শুক্রবার (০৪ মে) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের সব নদী বন্দরগুলোতেই হুঁশিয়ারি সংকেত দিয়ে রেখেছে আবহাওয়া অধিদফতর।আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে-বরিশাল অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বা তারও বেশি বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে।সেই সাথে বরিশালের নদীবন্দরসমূহকে দুই নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।আর অন্যসব এলাকার জন্য রয়েছে এক নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত।শনিবার (৫ মে) সকাল ৯ টা পর্যন্ত দেওয়া পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে,লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।আর মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।এ অবস্থায় বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া এবং বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে।সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারী ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ ও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হবে।এ সময় ঢাকায় বাতাসের গতিবেগ ওঠতে পারে ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত। বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো পরিস্থিতির কারণে সাগরে কোনো সতর্কতা নেই।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 61 বার