May 7, 2018 8:04 pm A- A A+

বরিশালের ছেলে ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে দুদক

অনলাইন ডেস্ক:

বর্তমান সময়ে সর্বাধিক বিতর্কিত পুলিশ কর্মকর্তা উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।তদন্ত কাজে অসহযোগিতাপূর্ণ আচরণের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সচিব ড:শামসুল আরেফিন।সোমবার (০৭ মে) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন- গতকাল রোববার (৬ মে) তার (ডিআইজি মিজান) কিছু নথিপত্র দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে জমা দেওয়ার কথা ছিল।সরবরাহ করার কথা ছিল।কিন্তু তিনি তা জমা দেননি বা সরবরাহ করেননি।‘এটা সম্পূর্ণভাবে তদন্ত কাজে অসহযোগিতা।তিনি যদি এভাবে অব্যাহতভাবে অসহযোগিতা করে যান,তবে দুদক আইনে তা অপরাধ।’এ অপরাধে দুদক আইনের ১৯ (৩) ধারায় বরিশালের সন্তান মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা হতে পারে বলেও জানিয়েছেন দুদক সচিব।ডিআইজি মিজানুর ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।গত জানুয়ারির শুরুর দিকে তাকে প্রত্যাহার করে পুলিশ সদর দফতরে সংযুক্ত করা হয়।মিজানুরের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় বিয়ে গোপন করতে নিজের ক্ষমতার অপব্যবহার করে স্ত্রী মরিয়ম আক্তারকে গ্রেপ্তার করানোর অভিযোগ রয়েছে।তাছাড়া নারী নির্যাতনেরও অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।এসব অভিযোগের প্রমাণ পায় পুলিশের তদন্ত কমিটি।এর পরিপ্রেক্ষিতে তাকে প্রত্যাহার করা হয়।’সবশেষ মিজানুরের বিরুদ্ধে প্রাণনাশের হুমকি ও উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ আনেন এক সংবাদ পাঠিকা।এসব অভিযোগের ভিত্তিতে গত ৫ এপ্রিল দুদক থেকে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর চিঠি পাঠিয়ে মিজানুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে দুদক।এরই প্রেক্ষিতে গত ৩ মে দুদক কার্যালয়ে আসেন ডিআইজি মিজানুর।ওইদিন জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বেরিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেছিলেন,তার কোনো অবৈধ সম্পদ নেই।তদন্তের জন্য দুদককে তিনি সব ধরনের সহযোগিতা করবেন।তবে রোববার (৬ মে) ট্যাক্স ফাইল ও চাহিদা মতো কাগজপত্র নিয়ে দুদকে আসার কথা থাকলেও তিনি আসেননি।’

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 192 বার