May 19, 2018 7:55 pm A- A A+

বরিশালে স্ত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন

বাণী ডেস্কঃ

পারিবারিক কলহের জের ধরে মাদকাসক্ত স্বামী তার প্রথম স্ত্রীকে হত্যার জন্য মারধর করে অচেতনের পর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ সাথী বেগমকে মুমূর্ষু অবস্থায় শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাত এগারোটার দিকে জেলার গৌরনদী পৌর এলাকার কাছেমাবাদ মহল্লায়।জানা গেছে,গত কয়েক বছরপূর্বে কাসেমাবাদ মহল্লার বাসিন্দা মান্নান শিকদারের মাদকাসক্ত পুত্র আলামিন শিকদার উজিরপুর উপজেলার খেয়াঘাট সংলগ্ন গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দা সাথী আক্তার নামের এক যুবতীকে প্রেমের ফাঁদে বিয়ে করে বাড়িতে নিয়ে আসে।বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করে।স্থানীয়রা জানান,বিয়ের পর পরই সাথীর সঙ্গে মাদকাসক্ত আলামিনের পারিবারিক কলহ শুরু হয়।একপর্যায়ে আলামিনের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তাদের একমাত্র শিশুপুত্রকে স্বামীর সংসারে রেখে বাবার বাড়িতে চলে যায় সাথী।সূত্রে আরও জানা গেছে,আলামিনের প্রথম স্ত্রী সাথী চলে যাওয়ার পর এ যাবত সে (আলামিন)ছয়টি বিয়ে করেছে।কোন স্ত্রীকে সে তালাক দেয়নি বরং মাদক সেবন করে স্ত্রীদের অত্যাচার নির্যাতন করায় সবাই মাদকাসক্ত আলামিনকে রেখে চলে যায়।পুত্রের টানে সাথী মাঝে মধ্যে আলামিনের বাড়িতে আসা যাওয়া করত।গত কয়েকদিন পূর্বে আলামিনের বাড়িতে আসে তার প্রথম স্ত্রী সাথী বেগম।পারিবারিক কলহের জের ধরে শুক্রবার রাত এগারোটার দিকে সাথী আক্তারকে অমানুষিক নির্যাতন করে আলামিন।একপর্যায়ে সাথী অচেতন হয়ে পড়লে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গায়ে কেরোসিন ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় আলামিন।এ সময় সাথির চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা উন্নত চিকিৎসার জন্য সাথী বেগমকে ওইদিন রাতেই বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন।অভিযুক্ত আলামিনের বোন পারভীন বেগম জানান,আলামিন নয়,তার স্ত্রী সাথী বেগম নিজেই নিজের শরীরে আগুন লাগিয়েছে।তিনি আরও জানান,ছয়টি নয়,আলামিন তিনটি বিয়ে করেছে।স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম রিপন জানান,আলামিনের বিরুদ্ধে মাদক সেবন করে রাতের আঁধারে কাছেমাবাদ মহল্লার বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে নারীদের উত্ত্যক্ত করার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 202 বার