May 28, 2018 5:22 pm A- A A+

পিরোজপুরে বন্দুকযুদ্ধে দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

বানী ডেস্ক:

পিরোজপুরে পৃথক বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় ওহিদুজ্জামান (৩৫) ও মিজানুর রহমান (৩৪) নামে দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।এসময় ডিবি ও থানা পুলিশের ৮ সদস্য আহত হয়েছেন।আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।রোববার (২৭ মে) দিবাগত রাতে পিরোজপুর সদর উপজেলার কৈবর্তখালী গ্রামে ও মঠবাড়িয়া উপজেলার বড়মাছুয়া গ্রামের এ ঘটনা ঘটে।পিরোজপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিএম আবুল কালাম আজাদ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।পুলিশ জানায়,রোববার দুপুরে পিরোজপুর পৌরসভার উত্তর কৃষ্ণনগর এলাকা থেকে ওহিদুজ্জামানকে পিরোজপুর ডিবি পুলিশের একটি দল গ্রেফতার করে।তার দেওয়া তথ্যানুযায়ী রাত পৌনে ১টার দিকে সদর উপজেলার কলাখালী ইউনিয়নের টোনা ব্রিজ সংলগ্ন কৈবর্তখালী গ্রামে অবৈধ অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারে সেখানে গেলে ওহিদুজ্জামানের সঙ্গীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে ডিবি পুলিশের কাছ থেকে অহিদুজ্জামানকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।এসময় মাদক ব্যবসায়ী ওহিদুজ্জামানের সঙ্গীদের আঘাতে ডিবি পুলিশের এএসআই আল-আমিন ও ডিবি পুলিশ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান আহত হন।পরে ডিবি পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে ডিবি পুলিশ পাল্টা গুলি চালায়।এসময় মাদক ব্যবসায়ী ওহিদুজ্জামান পালাতে গেলে ডিবি পুলিশের গুলিতে ঘটনা স্থলেই তিনি নিহত হয়।সেখান থেকে নিহত অহিদুজ্জামান ও আহত ২ ডিবি পুলিশ সদস্যকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।ঘটনাস্থল থেকে ১টি পাইপগান,৫ রাউন্ড গুলি,২টি বগি দা,১৭৫টি ইয়াবা ট্যাবলেট,৫০ গ্রাম গাঁজা,অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম ও মাদক সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। নিহত মাদক ব্যবসায়ী ওহিদুজ্জামান নেছারাবাদ উপজেলার দক্ষিণ কৌরিখাড়া গ্রামের মৃত আ. রহমানের ছেলে।পিরোজপুর ডিবির পরিদর্শক মিজানুল হক জানান,ওহিদুজ্জামানের বিরুদ্ধে মাদক,সন্ত্রাসী,অস্ত্র মামলাসহ মোট ৮টি মামলা রয়েছে।তিনি একটি মাদক মামলায় সাত বছরের কারাদন্ডপ্রাপ্ত আসামি।অন্যদিকে,রোববার রাতে ডাকাতির প্রস্তুতির খবর পেয়ে থানা পুলিশ উপজেলার বড় মছুয়া এলাকার গেলে ডাকাত ও ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান ও তার সঙ্গীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি করে।সেসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই মিজানুর রহমান মারা যায়।এতে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশের ৬ সদস্য গুরুতর আহত হয়।মাদক ব্যবসায়ী মিজানুর রহমানের সঙ্গীরা পালিয়ে যায়।পরে সেখান থেকে নিহত মিজানুর রহমান ও গুরুতর আহত ৬ পুলিশ সদস্যকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে পুলিশ।মিজানুর রহমান উপজেলার খায়ের ঘটিচোরা গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে। মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম ছরোয়ার বলেন,মিজানুরের বিরুদ্ধে মাদক ও ডাকাতিসহ ৬টি মামলা রয়েছে।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 84 বার