June 10, 2018 6:28 pm A- A A+

শিশু সহকর্মীর হাতে রেস্তোঁরা কর্মচারী খুন

বানী ডেস্ক:

পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌর শহরের লঞ্চঘাট এলাকার একটি খাবার হোটেলের কর্মচারী নয়ন মোল্লা (১৫) নামে একজন নিহত হয়েছে।পৌরশহরের লঞ্চঘাট এলাকায় আলম রেস্তোরাঁয় এ ঘটনা ঘটে।অভিযুক্ত ১২ বছরের ছোলেমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।কলাপাড়া থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানান,শনিবার মধ্যরাতে রেস্তোরাঁয় দুজনেই ঘুমাতে যায়।এসময় ছোলেমান সিগারেট খাচ্ছিল।তখন নয়ন গন্ধ সহ্য করতে না পেরে তর্কাতর্কি শুরু করে।একসময় পেঁয়াজ কাটার ছুরি দিয়ে ছোলেমান নয়নকে আঘাত করে।গলায় ছুরিকাঘাতে জখম হয় নয়ন।তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে নেয়া হয়।আশঙ্কাজনক থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল স্থানান্তর করেন চিকিৎসক।কিন্তু পথে নয়ন মোল্লা মারা যায়।এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।নিহত নয়নের বাড়ি কলাপাড়ার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামে। তার বাবার নাম খোকন মোল্লা।অভিযুক্ত ছোলেমানের বাড়ি আমতলী উপজেলার কলঙ্ক এলাকায়।বাবার নাম আবু বশার সিকদার।নিহত নয়ন মোল্লার খালাত ভাই আবদুল আলীম বলেন,কলাপাড়া লঞ্চঘাট এলাকার খান হোটেলে নয়ন কর্মচারী হিসেবে কাজ করত।আমি পাশের একটি মাছের গদিতে কাজ করি।ছুরিকাঘাতে আহত হওয়ার পর নয়ন দৌড়ে আমার কাছেই যায়।এমন অবস্থা দেখে দ্রুত নয়নকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাই।কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে তার চিকিৎসা দেয়া হয়।অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।পরে রবিবার সকাল ৮টার সময় নয়ন মারা যায়।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 152 বার