July 1, 2018 3:45 pm A- A A+

বরিশালের রুপাতলীতে গৃহবধূ নির্যাতন

বানী ডেস্কঃ
নগরীর রুপাতলী গ্যাস্টারবাইন এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক গৃহবধূকে পিটিয়েছে প্রতিপক্ষ।হাওলাদার বাড়ির বাসিন্দা আকবর হাওলাদার ও তার সহযোগীরা পিটিয়েছে বলে অভিযোগ আহতর পরিবারের। আহত মুকুল বেগম ঐ এলাকার বাসিন্দা কবির হাওলাদারের স্ত্রী।স্থানিয় সূত্রে জানা গেছে হাওলাদার বাড়ির বাসিন্দা কবিরের সাথে আকবরের পরিবারের জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতা ছিল।স্থানিয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিরোধ মিমাংশার জন্য একাধিকবার শালিস বৈঠকও করেন। কিন্তু শালিসীব্যবস্থার সিদ্ধান্ত ক্ষনিকের জন্য মেনে নিলেও,পরবর্তীকালে আবার শত্রুভাবাপন্ন সম্পর্ক তৈরী করে প্রতিপক্ষ। যার ধারাবাহিকতায় গতকাল রবিবার বিকেলে তাদেরকে প্রকাশ্যে পেটানো হয়। হামলায় আহত গৃহবধূকে রবিবার সকালেই বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শেবামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন,মুকুল বেগমের মাথায় ও শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম হয়েছে। একই এলাকার বাসিন্দা আকবর হাওলাদার,ঝুমুর আক্তার, বকুল বেগম,নার্গিস আক্তার, শারমিন আক্তার ও ৪/৫ জন তাদের উপর এ হামলা চালায়। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এর আগে এলাকার অনেককে প্রকাশ্যে পেটানোর অভিযোগ রয়েছে। গতকাল রবিবার শেবামেক হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, বকুল মাথায় ব্যান্ডেজ করা হয়েছে। নড়াচড়া করতে পারছেননা। ব্যাথায় কাতরাচ্ছেন। আহতর স্বামী কবির হাওলাদার বলেন,এর আগে জমি দখলের মিথ্যে অযুহাতে তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। যার ধারাবাহিতায় রবিবার আকবরের নির্দেশে ঐ পরিবারের সদস্যদের পেটানো হয়। মুকুল বেগমকে টেনেহিঁচড়ে এনে রাস্তার ওপরে ফেলে রাখা হয়। এসময় ঝুমুর বুকের উপর পা দিয়ে চেপে ধরে। এরপর ঝুমুরের সাঙ্গপাঙ্গরা প্রায় আধা ঘন্টা ধরে তাদেরকে পেটায়। অনেক লোক এ দৃশ্য দেখছিলেন। কিন্তু ভয়ে কেউ এগিয়ে আসেননি। পরে স্থানিয় বাসিন্দা ও পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করেন। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলার সময় কেঁদে ফেলেন মুকুল বেগম । তিনি বলেন,একজন সাধারন মানুষ হয়ে বেঁচে থাকার এই পরিণাম। ঝুমুরের কাছে আজ জিম্মি আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা। কথায় কথায় পরিবারের সদস্যদের মারধর করেন। তিনি আরো বলেন মারধর করার এক পর্যায় থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করবে বলেও হুমকি দিচ্ছে প্রতিপক্ষ।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 81 বার