July 29, 2018 7:43 pm A- A A+

বরিশাল সিটিতে সুনসান নীরবতা,ভোটের অপেক্ষা

বানী ডেস্কঃ

এখন শুধু ভোটের অপেক্ষা।রোববার (২৯ জুলাই) সকাল থেকেই বরিশাল সিটিতে সুনসান নীরবতা বিরাজ করছে। টানা ক’দিনের জমজমাট প্রচারণা শেষে সবই যেন থমকে আছে সোমবার (৩০ জুলাই) নির্বাচনের জন্য।তবে কৌশলী প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা।বিসিসি নির্বাচনে মেয়র পদে ৬ জন,সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৯৪ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।এবার ২ লাখ ৪২ হাজার ১৬৬ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ২১ হাজার ৪৩৬ জন এবং নারী ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ২০ হাজার ৭৩০ জন।নগরীতে ১২৩টি কেন্দ্রের ৭৫০টি বুথে বিরামহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে।এরমধ্যে ৪টি ওয়ার্ডের ১টি কেন্দ্রে ৭৮টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম পদ্ধতিতে।বিসিসি নির্বাচনে ১২৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ৫০টি অধিক গুরুত্বপূর্ন (ঝুঁকিপূর্ণ) ও ৬২টি গুরুত্বপূর্ণ এবং ১১টি কেন্দ্রকে সাধারণ কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশের বিশেষ শাখা।অধিক গুরুত্বপূর্ণ প্রতিটি কেন্দ্রে পুলিশ,এপিবিএন এবং আনসার মিলিয়ে ১৪ জন সশস্ত্রসহ মোট ২৪ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন।এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ ও সাধারণ কেন্দ্রে ১২ জন পুলিশ,এপিবিএন ও আনসারসহ মোট ২২ জন সদস্য দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন।কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন ছাড়াও পুলিশের একাধিক দলকে টহল দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি রিজার্ভ এবং স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।নির্বাচনকালীন যেকোনো অপ্রীতিকর ও অনাকাঙ্খিত ঘটনার বিচারের জন্য ১০ জন নির্বাহী এবং ১০ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে।এছাড়া ১৯ প্লাটুন বিজিবি ছাড়াও র‌্যাবের ৩৫টি টহল দল ও সাদা পোশাকধারীসহ প্রায় সাড়ে ৩শ সদস্য কেন্দ্রের বাইরে নির্বাচনী এলাকায় দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 74 বার