August 1, 2018 5:55 pm A- A A+

বরিশালে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ,অসদাচরণে এসআই প্রত্যাহার

এইচ.কে.রোকনঃ
বানী ডেস্কঃ

রাজধানীতে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় নয় দফা দাবিতে বরিশালে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার (০১ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বরিশাল নগরের চৌমাথা এলাকার ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ করে তারা এ বিক্ষোভ করে।শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের ফলে প্রায় এক ঘণ্টা ধরে ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল।পরে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে দুপুর সোয়া ২ টার দিকে কর্মসূচি প্রত্যাহার করে শিক্ষার্থীরা।এদিকে,কর্মসূচি শুরুর দিকে কোতোয়ালি থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) হাবিব শিক্ষার্থীদের গালাগাল ও তাদের সঙ্গে অসদাচরণের কারণে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।অপরদিকে,অবরোধের ফলে মহাসড়কের দু’পাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে সাধারণ যাত্রীরা বিপাকে পড়ে যায়।আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানায়,নিয়মিত ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে বেলা ১২টার দিকে বরিশালের সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ,অমৃত লাল দে কলেজ,সরকারি মহিলা কলেজ,সরকারি মডেল কলেজ,ইনফ্রা পলিটেকনিক কলেজসহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকশ শিক্ষার্থী নগরের চৌমাথা এলাকায় আসেন।এসময় তারা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে কোনো প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই নয় দফা দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করে।কিছু সময় পরে তারা একটি মিছিল বের করতে চাইলে এসআই হাবিবসহ পুলিশ সদস্যরা তাদের বাধা দেন।পরে পুলিশের এসআই হাবিব শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও তাদের মারতে উদ্যত হন।এতে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্দ হয়ে দুপুর ১টার দিকে মহাসড়ক অবরোধ করে।শিক্ষার্থীরা জানায়,ঘটনাস্থলে মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার শাহানাজ পারভীন ও কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম উপস্থিত হয়ে আমাদের (শিক্ষার্থীদের) সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি শান্ত করেন এবং পুলিশের দেওয়া আশ্বাসে বেলা সোয়া ২টার দিকে মহাসড়কের অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।তবে তারা সহপাঠীদের মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত চালক ও হেলপারের উপযুক্ত শাস্তিসহ নিরাপদ সড়কের জন্য সুনির্দিষ্ট আশ্বাস চেয়েছেন।একইসঙ্গে বরিশালের সড়কে চলাচলরত যানবাহনের চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স ও দক্ষতার বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া ও নগরের বিভিন্নস্থানে যত্রতত্রভাবে গড়ে উঠা অটোরিকশা ও থ্রি-হুইলার স্ট্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানায়।বরিশাল সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের শিক্ষার্থী সুহাদ বাংলানিউজকে বলেন,সহপাঠী নিহত হওয়ার ঘটনায় দোষী চালকদের বিরুদ্ধে ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে বৃহস্পতিবার (০২ আগস্ট) সকাল ১১টায় পুনরায় চৌমাথা এলাকায় কর্মসূচি পালন করা হবে।বরিশাল কোতয়ালি মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার সত্য রঞ্জন খাসকেল বলেন,আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পুলিশের এক কর্মকর্তা গালাগাল করেছেন বলে অভিযোগ উঠে।পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে এসআই হাবিব নামের ওই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেছেন।পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থাও নেওয়া হতে পারে।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 115 বার