September 15, 2018 7:22 pm A- A A+

পুত্রবধুর অত্যাচারে মুক্তিযোদ্ধা স্ত্রীসহ গৃহহারা

বানী ডেস্কঃ

প্রবাসী ছেলের স্ত্রীর অনৈতিক কাজে বাঁধা দেয়ায় গৃহহারা করা হয়েছে বীরমুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন চৌকিদার (৭০) ও তার স্ত্রী সেলিনা বেগমকে (৬৫)।নিজগৃহে ফিরে যেতে প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়ে শনিবার দুপুরে মানববন্ধন করেছে মুক্তিযোদ্ধার সহযোদ্ধা ও এলাকাবাসী। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার শাহাজিরা গ্রামের।মানববন্ধন চলাকালীন সময় অত্যাচারী পুত্রবধুর হাত থেকে রেহাই পেতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সহযোগীতা চেয়ে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন চৌকিদার,তার সহযোদ্ধা আইউব আলী খান,বেলায়েত হোসেন খান,সাবেক ইউপি সদস্য আমজাদ হোসেন খান প্রমুখ।মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন জানান,১৩ বছর পূর্বে বাবুগঞ্জের ঠাকুরমল্লিক গ্রামের আজিজ হাওলাদারের কন্যা সুমনা ইয়াসমিনকে সামাজিকভাবে তার পুত্র মোকছেদ চৌকিদার বিয়ে করে।দাম্পত্য জীবনে তাদের দুইটি পুত্র সন্তান রয়েছে।বিয়ের পর কর্মস্থলের সুবাদে মোকছেদ সৌদি আরবে পাড়ি জমায়।আনোয়ার হোসেন আরও জানান,তার ছেলে প্রবাসে থাকার সুবাদে পুত্রবধু সুমনা ইয়াসমিন অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পরে।এ নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন ও তার স্ত্রী বাঁধা প্রদান করায় সুমনা ক্ষিপ্ত হয়।সূত্রমতে,চলতি বছরের জুন মাসে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল থেকে সাপে কাটা এক রোগীকে মৃত ঘোষনা করা হয়।নিজেকে ফকির দাবী করে সুমনা ইয়াসমিন মৃত রোগীকে জীবিত করার ঘোষনা দিয়ে বাড়িতে বসেই ঝাঁড়ফুকের নামে ভন্ডামী শুরু করে।গ্রামবাসীর চরম আপত্তির মুখে পুত্রবধুর কর্মকান্ডে প্রতিবাদ করেন একাত্তরের রনাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন ও তার স্ত্রী।এতে চরম ক্ষিপ্ত হয়ে সুমনা ইয়াসমিন তার বৃদ্ধ শশুর-শাশুরির উপর অত্যাচার ও নির্যাতন শুরু করে।এমনকি বরিশাল আদালতে হয়রানীর উদ্দেশ্যে ভন্ড ফকির সুমনা ইয়াসমিন বাদি হয়ে সৌদি আরবে অবস্থানরত তার স্বামী মোকসেদ চৌকিদার,শ্বশুর আনোয়ার হোসেন,শ্বাশুড়ি সেলিনা বেগম,ভাসুর আশ্রাফুর চৌকিদারসহ পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে একটি মিথ্যে মামলা দায়ের করেন।আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী সেলিনা বেগম জানান,গত তিনদিন পূর্বে পুত্রবধু সুমনা ইয়াসমিন একটি ধারালো দা নিয়ে তাকে ও তার মুক্তিযোদ্ধা স্বামীকে ধাওয়া করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে।সেই থেকে পুত্রবধুর অত্যাচারে তারা পার্শ্ববর্তী সাকোকাঠী গ্রামের এক আত্মীয়র বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।ভন্ড ফকির সুমনা ইয়াসমিনের অত্যাচার ও নির্যাতনের হাত থেকে রেহাই পেতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট 118 বার