বুধবার, ২২শে মে, ২০১৯ ইং, রাত ১০:৩৪

ফাঁকা কুয়াকাটা পর্যটন মৌসুমেও

ফাঁকা কুয়াকাটা পর্যটন মৌসুমেও

dynamic-sidebar

বাণী ডেস্কঃ পর্যটন মৌসুমেও পর্যটক নেই সমুদ্রকন্যা কুয়াকাটায়। এতে পর্যটন ব্যবসায়ীরা পড়েছেন লোকসানের মুখে। তবে পর্যটনবান্ধব সরকার আবারো ক্ষমতায় আসায় আশার আলো দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। আর জনপ্রতিনিধির আশা, আগের সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী পাঁচ বছরে পাল্টে যাবে কুয়াকাটার চিত্র।

মৌসুমের এ সময়ে পর্যটকদের ভিড়ে মুখরিত থাকার কথা কুয়াকাটার সমুদ্র সৈকত। তবে সংসদ নির্বাচনের কারণে প্রায় এক মাস ধরে পর্যটকদের আনাগোনা কুয়াকাটায় নেই বললেই চলে। ফলে সমুদ্র পাড়ে অলস সময় পার করছেন স্পিড বোর্ড চালক ও ফটোগ্রাফাররা। একই অবস্থা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরও ।

   এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বলেন, নির্বাচনের এক মাস আগে থেকেই আমাদের বেচাকেনা একেবারেই কম।

তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আবারও ক্ষমতায় আওয়ামী লীগ আসায় আশার আলো দেখছেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা।

একটি আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থাপক বলেন, সরকারের মাস্টারপ্ল্যানগুলো বাস্তবায়িত হলে আমরা অনেক উপকৃত হবো।

এদিকে কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র মো. বারেক মোল্লা জানালেন, আওয়ামী লীগ সরকারের নেয়া বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প ও মাস্টার প্লান এবার কার্যকর হলে আগামী ৫ বছরে বদলে যাবে কুয়াকাটার চিত্র।

তিনি বলেন, এই সরকার আরো পাঁচ বছর থাকবে। আমার মনে হয় এই কুয়াকাটার উন্নয়নে এই পাঁচ বছরের বেশি সময় লাগবে না।

শুধু পৌর কর্তৃপক্ষের অধীনে বর্তমানে কুয়াকাটায় ১৪০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে।

গত ১০ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কুয়াকাটাকে আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে মাস্টার প্লান। আরো ৫ বছর ক্ষমতায় থাকছে এ সরকার। তাই মাস্টার প্লান বাস্তবায়নের মাধ্যমে কুয়াকাটা হবে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটন কেন্দ্র। এমনটাই মনে করছেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা।’

16Shares

Count currently

  • 102111Visitors currently online:

Counter Total

Facebook Pagelike Widget

Desing & Developed BY EngineerBD.Net