বুধবার, ২০শে মার্চ, ২০১৯ ইং, বিকাল ৩:৫০

সব কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকুন, পাক জনতা ও সেনার উদ্দেশে বার্তা ইমরানের

সব কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকুন, পাক জনতা ও সেনার উদ্দেশে বার্তা ইমরানের

dynamic-sidebar

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

 

ভারতের আক্রমণে দিশেহারা পাকিস্তান পরিস্থিতি সামাল দিতে মঙ্গলবার দুপুরেই জরুরি বৈঠকের ডাক দেয়। ইসলামাবাদে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পাক প্রশাসনের কর্তাব্যক্তি, পাকিস্তান সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী এবং সেনাপ্রধান। বৈঠক শেষে পাকিস্তান সেনা এবং পাক জনসাধারণকে সব কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকার বার্তা দিল পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দফতর।

আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে ২৩ কিলোমিটার ভিতরে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটি নিকেশ করতে ভারতের সফল অভিযানের প্রতিক্রিয়ায় কী করতে পারে পাকিস্তান, তা নিয়েই জরুরি ভিত্তিতে বৈঠকের ডাক দেয় পাকিস্তান। ইসলামাবাদে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নেতৃত্বে জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পাক সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া, জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান জেনারেল জুবের হায়াত, নৌসেনা প্রধান জাফর মহম্মদ আব্বাসি ছাড়াওপ্রশাসনের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিরা।

এই বৈঠকের শেষেই বিবৃতি দেয় পাক প্রধানমন্ত্রীর দফতর। সেখানেই বলা হয়, ‘বৈঠকে ঠিক হয়েছে, কোনও রকম প্ররোচনা ছাড়াই হামলা চালিয়েছে ভারত। যার জবাব নির্দিষ্ট সময়েই দেবে পাকিস্তান।’ একই সঙ্গে এই বিবৃতিতে বলা হয়, ‘পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী এবং দেশের সাধারণ নাগরিকদের সব কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।’

 

পাক প্রধানমন্ত্রীর দফতরের দেওয়া এই বিবৃতির পরই সাংবাদিক বৈঠক করেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি। তাঁর সঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকে ছিলেন পাক অর্থমন্ত্রী আশাদ উমর এবং পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী পারভেজ খাট্টাক। বিবৃতিতে কুরেশি জানান, ভারতের এই হামলার জবাবে আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় জনমত তৈরির চেষ্টা করছে পাকিস্তান। তিনি বলেন, ‘‘আমি নিজে তুরস্কের বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছি। আমাদের বিদেশসচিব তেহমিনা জানজুয়া জেড্ডাতে কথা বলেছেন মুসলিম দেশগুলিরযৌথ সংগঠন ‘অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন’-এর সঙ্গে। আমরা সবাইকেই আমাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিচ্ছি।’’

সাংবাদিক বৈঠকে পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি। ছবি: তেহরিক ই ইনসাফের টুইটার অ্যাকাউন্ট। 

একই সঙ্গে অবশ্য কুরেশি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ‘‘পাকিস্তান রাজনৈতিক, কূটনৈতিক এবং সামরিক স্তরে প্রত্যাঘাত হানবে। আমাদের সীমান্ত সুরক্ষিত রাখার প্রয়োজনীয়তা আমরা ভালই বুঝি।’’

10Shares

Count currently

  • 67907Visitors currently online:

Counter Total

Facebook Pagelike Widget

Desing & Developed BY EngineerBD.Net