বৃহস্পতিবার, ২২শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, রাত ২:২৯

বাউফলে ট্রলার ডুবির ঘটনায় লঞ্চের নাম নিয়ে ধোঁয়াশা !

বাউফলে ট্রলার ডুবির ঘটনায় লঞ্চের নাম নিয়ে ধোঁয়াশা !

বাউফল প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর বাউফলে কেশবপুর ইউপির ভরিপাশা মুন্সী বাড়ীর ঘাটের কাছে গত শুক্রবার ভোরে তেঁতুলিয়া নদীতে একটি দোতালা লঞ্চের ধাক্কায় একটি মাছ ধরার ট্রলার ডুবে গিয়ে একজন নিখোঁজ আরও দুই জেলে আহত হয়। বরিবার ওই ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ জুয়েল বয়াতীর (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে জেলেরা। তবে দূর্ঘটনা ঘটিত লঞ্চে নাম নিয়ে ধোয়াশার সৃষ্টি হয়েছে।
ঘটনার দিন নিহত জুয়েলের বাবা আলী হোসেন বন্ধন-৫ লঞ্চকে দায়ী বাউফল থানায় সাধারন ডায়রি করেছেন। সেখানে উল্লেখ করা হয় ভোর ৪টা থেকে সাড়ে ৪টার মধ্যে দূর্ঘটনাটি হয়।
অপরদিকে বন্ধন-৫ লঞ্চের পরিচালক সাহাজাহান মিয়া বলেন সাড়ে ৪টা পর্যন্ত তার লঞ্চ ধুলিয়া ঘাটে যাত্রী ও পণ্য নামায়। এরপর সেখান থেকে কালাইয়ার উদ্দ্যেশে রওনা হয়।
সাহাজাহান বলেন এই রুটে আরো কয়েটি লঞ্চ চলাচল করে। তার আগে যে ৪টি লঞ্চে গেছে তারা ঘটাতে পারে। সেদিন বেশি কুয়াশা পড়ায় তারা সঠিক নাম দেখেনি, হয়তো অনুমান করে বন্ধন-৫ লঞ্চে করা বলছে।
ঘটনার সময় বন্ধন-৫ লঞ্চটি ধুলিয়া ঘাটে অবস্থান করার সত্যতা স্বিকার করে ধুলিয়া লঞ্চ ঘাট ইজারাদাররে প্রতিনিধি মনির বলেন  সাড়ে ৪টা পর্যন্ত লঞ্চটি ধুলিয়া ঘাটে ছিলো। ওই ঘটনার সাথে বন্ধন লঞ্চের কোন সম্পৃত্তা নাই।

কেশবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন লাভলু জানান, নিহত জুয়েল বয়াতীর লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
এব্যাপারে বাউফল থানা পুলিশ বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

0Shares
Categories

Desing & Developed BY EngineerBD.Net