মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং, বিকাল ৪:১৪

নয়নের সঙ্গেও বিয়ে হয়েছিল মিন্নির

dynamic-sidebar

বরগুনায় প্রকাশ্য দিবালোকে রিফাত শরীফকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি সাব্বির হোসেন নয়ন ওরফে নয়ন বন্ডের সঙ্গে রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির বিয়ে হয়েছিল বলে খবর প্রকাশ পেয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় কাজী মো. আনিসুর রহমান ভূঁইয়া। তিনি বরগুনা পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের বিবাহ রেজিস্টার। স্থানীয় ডিকেপি রোডের পাশের কেজি স্কুল স্ট্যান্ডে তার কাজী অফিস।

    বিয়ের কাবিননামা থেকে দেখা যায়, নয়ন বন্ড ও আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির বিয়ের প্রথম স্বাক্ষী হচ্ছেন রিফাত শরীফ হত্যার দ্বিতীয় আসামি বাকিবুল হাসান রিফাত ওরফে রিফাত ফরাজি। ২০১৮ সালের ১৫ অক্টোবর আসরের নামাজের পর কাজী অফিসেই তাদের বিয়ে হয়। মিন্নি-নয়নের বিয়ের দেনমোহর ধার্য করা হয়েছিল ৫ লাখ টাকা। তবে দেনমোহর নগদে পরিশোধ করা হয়নি।

বিয়ের কাজী মো. আনিসুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিয়ের বর নয়ন ও কনে মিন্নিসহ সেদিন প্রায় ১৫-২০ জন আমার অফিসে এসেছিল। নয়ন ও মিন্নি তাদের বয়স প্রমাণের জন্য এসএসসি পরীক্ষার সার্টিফিকেট প্রদর্শন করে। পরে আমি মেয়ের বাবা পরিচয় দেয়া একজন এবং মেয়ের মা পরিচয় দেয়া এক মহিলার সঙ্গে কথা বলি। এরপর তাদের সম্মতিতে বিয়ের কাজটি সম্পন্ন করি।

কাজী জানান, বিয়ের মোহরানা ছিল ৫ লাখ টাকা। উকিল ছিলেন শাওন। সে ডিকেপি রোডের জালাল আহমেদের ছেলে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নয়ন ও মিন্নি সম্পর্কের বিষয়টি কানাঘুষা হয়। এরপরই খুনী নয়নের সঙ্গে তার বিষের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। তবে মিন্নি বরাবরই জানিয়ে আসছে, ‘রিফাত শরীফের সঙ্গেই কেবলমাত্র আমার বিয়ে হয়েছে। আর কারো সঙ্গে বিয়ে হয়নি। রিফাতই আমার স্বামী। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। যারা আমার স্বামীকে হত্যা করেছে তাদের অবশ্যই ফাঁসি চাই।’

0Shares

Count currently

  • 174651Visitors currently online:

Counter Total

Facebook Pagelike Widget

Desing & Developed BY EngineerBD.Net